সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১০:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
কলম সৈনিক এম.আনোয়ার হোসেনের জন্মদিন আজ বাংলাদেশ হেলথ এ্যাসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন কুড়িগ্রাম জেলা শাখার কর্মবিরতি অব্যাহত দৌলতদিয়া ঘাটে ভুয়া পুলিশ পরিচয়ে এক যুবক আটক স্বচ্ছতা গ্রুপের পক্ষ থেকে বেকার যুবককে চটপটি বিক্রির ভ্যানগাড়ি প্রদান নেত্রকোনায় সড়ক দুর্ঘটনা রোধে পথসভা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যের বিরোধিতাকারীদের শাস্তির দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে মানববন্ধন শ্রীবরদীতে নিখোঁজের ৫দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার দর্শনায় ফেন্সিডিলসহ পুলিশের হাতে নারী ও পুরুষ আটক মিরসরাইয়ে আবু ছালেক কোম্পানি মিনিবার ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল ঝিনাইদহ’ট্রাভেলেটস অফ বাংলাদেশ’– ভ্রমণকন্যা সংগঠনের ৪র্থ বর্ষপূর্তি পালন আকন্দবাড়িয়ার এক নারী ফেন্সিডিলসহ ঝিনাইদহ ডিবি’র হাতে আটক সুনামগন্জ সীমান্তে ভারতীয় মদ ও নাসির বিড়ি আটক গাঁজাসহ দর্শনা থানা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার-২ জামালপুর মিনিস্ট্রিয়াল কর্মচারী ক্লাবে ৮ জুয়ারিকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা বেতন বৈষম্য নিরসনের দাবিতে কর্মবিরতিতে বাংলাদেশ হেলথ এসিস্ট্যান্ট এসোসিয়েশন
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট

রাবিতে অনলাইন ক্লাস, বঞ্চিত অর্ধেক শিক্ষার্থী

খোরশেদ আলম, রাবি প্রতিনিধি:
  • প্রকাশিত সময় : মঙ্গলবার, ২৫ আগস্ট, ২০২০

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে শিক্ষা কার্যক্রম এগিয়ে নিতে শুরু হওয়া অনলাইন ক্লাসে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) অধিকাংশ শিক্ষার্থী ঠিকমতো অংশগ্রহণ করতে পারছে না।

ধীরগতি ও উচ্চমূল্যের ইন্টারনেট, প্রয়োজনীয় ডিভাইস, প্রযুক্তিগতসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধার অভাবে অনলাইন ক্লাস থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়টির কয়েক হাজার শিক্ষার্থী। শুরুর দিকে উপস্থিতির হার কিছুটা ভালো হলেও ঈদের ছুটির পর উপস্থিতির সংখ্যা একেবারেই নাজুক। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়টির কয়েক হাজার শিক্ষার্থী একাডেমিকভাবে পিছিয়ে পড়েছে ।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, অনলাইন ক্লাস শুরুর প্রথম দিকে বিভিন্ন বিভাগে অর্ধেক বা এর কিছু বেশি শিক্ষার্থী ক্লাসে উপস্থিত হলেও বর্তমানে বেশিরভাগ বিভাগে প্রায় অর্ধেকেরও কম শিক্ষার্থী ক্লাসে যুক্ত হচ্ছেন। অনুষদ ভেদে উপস্থিতির হারটা ছিল ভিন্ন ভিন্ন। মূলত দুর্বল নেটওয়ার্ক, স্বল্পগতির ইন্টারনেট, ব্যান্ডউইথের উচ্চমূল্য এবং ডিভাইস স্বল্পতার কারণে বেশির ভাগ শিক্ষার্থী ক্লাসে যুক্ত হতে পারছে না।

বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫৯টি বিভাগ ও ছয়টি ইনস্টিটিউটে প্রায় ৩৮ হাজার শিক্ষার্থী রয়েছে। ঈদের পর শুরু হওয়া ক্লাসে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, দুয়েকটি বিভাগ ছাড়া বেশিরভাগ বিভাগেই শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার প্রতিটি বর্ষের মোট শিক্ষার্থীর ৫০ ভাগেরও কম। এছাড়াও সমাজকর্ম দ্বিতীয় বর্ষ, দর্শন দ্বিতীয় বর্ষসহ বেশ কয়েকটি বিভাগে এখনো ক্লাস শুরু হয়নি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রকৌশল অনুষদভুক্ত বিভাগগুলোতে অনলাইন ক্লাসে শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণের হার শতকরা ৬০ ভাগের কাছাকাছি। বিজ্ঞান অনুষদে উপস্থিতির হার শতকরা ৫০-৬০ ভাগের মতো। তবে কৃষি অনুষদ ও সমাজ বিজ্ঞান অনুষদে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার ৩০-৩৫ ভাগেরও কম। কলা ও ব্যবসা অনুষদেও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতির হার শতকরা ৪০ ভাগের মতো।

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রথম বর্ষের অনলাইন ক্লাসে ৬০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৫/২৬ জন, দ্বিতীয় বর্ষের ক্লাসে ৫৫ জনের মধ্যে ২২/২৩ জন, বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ১০০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪০ জন, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃত বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ১০০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪০ জন, উর্দু বিভাগে ৪৫ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ১০/১২ জন, অ্যাকাউন্টিং ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের ১২০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪৫/৪৬ জন, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের মাস্টার্সের ১২০ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৪০ জন উপস্থিত হয়।

অনলাইন ক্লাসে যুক্ত হতে না পারা উর্দু বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী রানা বলেন, ‘আমাদের অনলাইন ক্লাস শুরু হয়েছে। আমার স্মার্ট ডিভাইসও আছে। কিন্তু ইন্টারনেটের কম গতি ও ডেটা প্যাকের উচ্চমূল্যের কারণে ক্লাসে যুক্ত হতে পারছি না।’

গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মানিক হোসেন বলেন, ‘কয়েকজন স্যার অনলাইনে ক্লাস নিচ্ছেন। ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও অনলাইনে ক্লাস করার মতো ডিভাইস না থাকায় ক্লাসে উপস্থিত হতে পারছি না। এই মুহূর্তে নতুন স্মার্টফোন কেনা ও ইন্টারনেট খরচ বহন করা আমার পক্ষে সম্ভব না।’

অনলাইন ক্লাসের জন্য শিক্ষকদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতার জন্য তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

কমিটির চেয়ারম্যান ও ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স সেলের পরিচালক অধ্যাপক আবু বকর মো. ইসমাইল বলেন, ‘অনলাইন ক্লাসে কেন শিক্ষার্থীরা উপস্থিত হতে পারে না তার কারণ আমরা বিভাগের প্রধান ও শিক্ষকদের কাছে জানতে চেয়েছি। যাদের ডিভাইস নেই তাদের লিস্ট করার জন্য প্রতিটি বিভাগে চিঠি দেয়া হয়েছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যে আমরা এমন আরও সমস্যার বিষয়গুলো প্রশাসনের কাছে জমা দেব। তারা বিভাগের সভাপতি ও অনুষদের ডিনদের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে।’

অনলাইন ক্লাসের সার্বিক বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেও কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

বিজ্ঞাপন

cloudservicebd.com

বিজ্ঞাপন

ডেইলি সংবাদ প্রতিদিন মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102