শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম ::
৪ ডিসেম্বর জীবননগর মুক্ত দিবস লক্ষ্য যখন ‘খ’ ইউনিট নির্বাচনকে ঘিরে কুবি শিক্ষক সমিতিতে বিভক্তি  আজানরত অবস্থায় মুয়াজ্জিনের মৃত্যু  বাংলাদেশ হেলথ এ্যাসিসট্যান্ট এসোসিয়েশন মিরসরাই উপজেলা জেলা শাখার কর্মবিরতি অব্যহত খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র ফেরাতেই ভোটে বিএনপি জামালপুর জেলা কারাগারে এক কয়েদীর মৃত্যু মাধবপুরে চা-শ্রমিকদের মাঝে কম্বল বিতরণ ঝিনাইদহে প্রেমিকের মৃত্যু সইতে না প্রেমিকার আত্মহত্যা আনোয়ারায় ১৫ নং ঘাটে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহনের দুই মাঝি আটক আনোয়ারায় দুই ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা স্নাতক শেষ বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে রাবিতে অবস্থান কর্মসূচি প্রতিবন্ধীরা বোঝা নয়, সম্পদ গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি পরীক্ষায় যাচ্ছে জবি ইউজিসির ‘পোস্ট ডক্টোরাল ফেলোশীপ’র জন্য মনোনীত হয়েছেন ড. মিল্টন বিশ্বাস
মোট আক্রান্ত

৪৭৩,৯৯১

সুস্থ

৩৯০,৯৫১

মৃত্যু

৬,৭৭২

  • জেলা সমূহের তথ্য
  • ঢাকা ১৪৬,৪১৩
  • চট্টগ্রাম ২৫,৩৩৪
  • বগুড়া ৮,৮৪৪
  • কুমিল্লা ৮,৫৮৮
  • সিলেট ৮,৪৫৭
  • নারায়ণগঞ্জ ৭,৯০৭
  • ফরিদপুর ৭,৭৯৩
  • খুলনা ৬,৮৮২
  • গাজীপুর ৬,৪২৩
  • কক্সবাজার ৫,৫০৭
  • নোয়াখালী ৫,৩২৫
  • বরিশাল ৪,৪৪৬
  • যশোর ৪,৪৩৪
  • ময়মনসিংহ ৪,১৩২
  • মুন্সিগঞ্জ ৪,০৫৭
  • দিনাজপুর ৪,০৫৭
  • রংপুর ৩,৫৯৯
  • কুষ্টিয়া ৩,৫৯৭
  • টাঙ্গাইল ৩,৫০১
  • রাজবাড়ী ৩,২৯৩
  • কিশোরগঞ্জ ৩,২৭৬
  • গোপালগঞ্জ ২,৮৬১
  • নরসিংদী ২,৬৪৮
  • ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২,৬৪৩
  • চাঁদপুর ২,৫৪৭
  • সুনামগঞ্জ ২,৪৬৭
  • সিরাজগঞ্জ ২,৩৯৪
  • লক্ষ্মীপুর ২,২৫০
  • ঝিনাইদহ ২,১৯৪
  • ফেনী ২,১০২
  • হবিগঞ্জ ১,৮৯৪
  • শরীয়তপুর ১,৮৩০
  • মৌলভীবাজার ১,৮২৮
  • জামালপুর ১,৭৩৬
  • মানিকগঞ্জ ১,৬৪৮
  • পটুয়াখালী ১,৬০৯
  • চুয়াডাঙ্গা ১,৫৯৩
  • মাদারীপুর ১,৫৫৭
  • নড়াইল ১,৪৮৮
  • নওগাঁ ১,৪৩৪
  • পাবনা ১,৪০০
  • ঠাকুরগাঁও ১,৩৮২
  • গাইবান্ধা ১,৩৩১
  • নীলফামারী ১,২২৭
  • জয়পুরহাট ১,২১১
  • পিরোজপুর ১,১৩৯
  • নাটোর ১,১৩৩
  • সাতক্ষীরা ১,১২৮
  • রাজশাহী ১,০৮৫
  • রাঙ্গামাটি ১,০৩৭
  • বাগেরহাট ১,০২৩
  • মাগুরা ১,০১৩
  • বরগুনা ১,০০৩
  • কুড়িগ্রাম ৯৬৫
  • লালমনিরহাট ৯২৯
  • ভোলা ৯০০
  • বান্দরবান ৮৫৭
  • চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৮০৭
  • নেত্রকোণা ৭৯০
  • ঝালকাঠি ৭৮৯
  • খাগড়াছড়ি ৭৪০
  • পঞ্চগড় ৭৩৯
  • মেহেরপুর ৭১৬
  • শেরপুর ৫২৪
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট

নাগরপুরে কৃষি অফিসের জায়গা দখল করে নৈশ্যপ্রহরীর গৃহ নির্মাণের অভিযোগ

নাগরপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশিত সময় : রবিবার, ৩০ আগস্ট, ২০২০

অভিযোগ  উঠেছে টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার বাবনাপাড়া মৌজায় ৮৫২ নং দাগের ভূমি, যাহা কৃষি মন্ত্রনালয়ের অধীনের নাগরপুর কৃষি অফিসের জায়গা। নৈশপ্রহরী জহিরুল ইসলাম এই জায়গাটি দখল করে স্থায়ী গৃহ নির্মানে ব্যস্ত।

এ অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে, ঘটনা স্থলে গিয়ে কৃষি অফিসের জায়গা দখলের বিষটির সত্যতা পাওয়া যায়। স্থায়ী গৃহ নির্মান ছাড়াও অফিস জায়গার গাছ কর্তন, গাছের ডালপালা কর্তন ও চৌচালা বা চার চালা রঙ্গীন টিনের ঘর নির্মানে ব্যস্ত ছিলেন নৈশপ্রহরী।

সে উপজেলার দুয়াজানী গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিনের ছেলে জহিরুল ইসলাম।
ঘর নির্মানের বিষয়ে জহিরুল বলেন, আমি নাগরপুর উপজেলার কৃষি কর্মকতা মো. আব্দুল মতিন বিশ্বাস এর নির্দেশেই গৃহ নির্মান করছি এবং এর সকল খরচ তিনিই দিচ্ছেন। এ বিষয়ে তিনিই অনুমোতি দিয়েছন। লিখিত অনুমোতির কথা জানতে চাইলে, জহিরুল বলেন, কিসের অনুমোতি, কার অনুমোতি। তবে তিনি নিজেকে কৃষি অফিসের অফিস ক্লার্ক দাবী করেন।

পরে তিনি বলেন, স্যারের মৌখিক অনুমোতি নিয়েই ঘর নির্মান করছি। তার বক্তব্য চাইলে এবং কাজের বিসয়টির ভিডিও ধারন করার সময় সে আব্দুল মতিন বিশ্বাস সহ বেশ কয়েক জনকে ফোন দিয়ে সংবাদটি না প্রকাশের জন্য চাপ প্রয়োগ করান।
কৃষি অফিসের ক্লার্ক দাবী করা জহিরুল ইসলামের সাথে কথা বলার সময় বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের চাকুরীরত পরিচয় দিয়ে তার বড় ভাই খোকন ধামকি দিয়ে বলেন, আপনারা কে? এখানে আমার ভাই ঘর নির্মান করছে, তাতে আপনাদের কি? আপনারা ছবি তুলেছেন কেন, চলে যান। আমি বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের চাকুরী করি, আমার বাড়ি দুয়াজানী, আমি আপনার বিষয়টি আমি দেখছি।

এ বিষয়ে নাগরপুর উপজেলা কৃষি কর্মকতা মো. আব্দুল মতিন বিশ্বাস বলেন, আমাদের অফিসের উপ সহকারীদের জন্য কোয়ার্টারের বেহাল দশা। তাই গাছপালা ও সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য জহিরুলকে কোয়ার্টারে অস্থায়ী ঘর নির্মান করে থাকার জন্য মৌখিক অনুমোতি দিয়েছি। যেখানে ঐ কোয়ার্টারে ২জন উপ সহকারী কৃষি অফিসারকে থাকার জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। তাকে প্রশ্ন করা হয়, যাদের নামে কোয়ার্টার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে তারা কি অফিসের সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারছেন না? উত্তরে তিনি বলেন, নৈশপ্রহরী তার পরিবার নিয়ে ওখানে থাকলে গাছপালা ও সম্পত্তির সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ হবে। তবে নৈশপ্রহরী কি দিনে ডিউটি পালন করবে? এমন প্রশ্নের উত্তর তিনি দেননি।
আর গৃহ নির্মানের খরচের বিষয়ে তিনি বলেন, এখন জহিরুলকে নিজ খরচে ঘর নির্মান করতে বলেছি। তবে পরে কোন ফান্ড আসলে সেখান থেকে তাকে বরাদ্দ দেয়া হবে। তবে আমি গাছপালা কর্তনের ব্যপারে কিছুই জানিনা।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

বিজ্ঞাপন

cloudservicebd.com

বিজ্ঞাপন

ডেইলি সংবাদ প্রতিদিন মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102