রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১১:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম ::
মুস্তাফিজের লাশ কাঁধে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ দূর্গা পূজা উপলক্ষে সিঙ্গাপুর ছাত্রলীগের সহ,সভাপতি সজিবের নিজ এলাকায় উপহার সামগ্রী বিতরণ আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলো হিংসাত্মক, উদ্দেশ্যপ্রণীত ও ভিত্তিহীন:রাবি উপাচার্য পলাশবাড়ীর কিশোরগাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ ভবন ও মায়া মন্দির পরিদর্শনে এডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি সামাজিক দুরত্ব মেনে রসুলপুর বাজার মন্দিরে শারদীয় দুর্গোৎসব চলছে দর্শনায় পুলিশের হাতে চার ভুয়া পুলিশ আটক নোয়াখালী পাঁচ টুকরো করে হত্যা, আরো ২ আসামি গ্রেফতার নোয়াখালীতে দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে কিশোরীকে ধর্ষণ, যুবক গ্রেপ্তার ফরিদপুরে ‘দৈনিক আজকের সারাদেশ পত্রিকা’র ৫ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন তাহিরপুরে জাতীয় বিজ্ঞান অলিম্পিয়াড প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত আলী হোসেন খান সহ ২জনের বিরুদ্ধে চাঁদাদাবীর অভিযোগ ইউএনও বরাবরে লিখিত অভিযোগ সাংবাদিক পুত্র রাফি’র সুস্থ্যতার জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা সুনামগঞ্জ সদরে বিশ্ববিদ্যালয় নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন শীতকালীন সবজি হিসেবে শিমের চাষ শুরু করেছে কৃষকরা নোয়াখালী চাটখিলে ভূয়া সিআইডি কর্মকর্তা আটক
মোট আক্রান্ত

সুস্থ

মৃত্যু

  • জেলা সমূহের তথ্য
ন্যাশনাল কল সেন্টার ৩৩৩ | স্বাস্থ্য বাতায়ন ১৬২৬৩ | আইইডিসিআর ১০৬৫৫ | বিশেষজ্ঞ হেলথ লাইন ০৯৬১১৬৭৭৭৭৭ | সূত্র - আইইডিসিআর | স্পন্সর - একতা হোস্ট

পাটগ্রামে চার সন্তানের জননীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার  

শেখ রনদ সিমান্ত,লালমনিরহাট প্রতিনিধি:
  • প্রকাশিত সময় : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

লালমনিরহাট পাটগ্রাম উপজেলা ২ নং পাটগ্রাম ইউনিয়নের পশ্চিম ঘোনাবাড়ি ২ নং ওয়ার্ড নিবাসী চার সন্তানের জননী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্বহত্যা করেছেন।

পাটগ্রাম উপজেলার ২নং পাটগ্রাম ইউনিয়নের​ পশ্চিম ঘনা বাড়ি ২নং ওয়ার্ড বসবাসকারী মোহাম্মদ শাহিন ৪০এর স্ত্রী মোসাম্মৎ লাকি আক্তার ৩২ তার নিজ ঘড়ে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে আত্বহত্যা করেন।

কিন্তু এলাকাবাসীর দাবি মোসাম্মৎ লাকী আক্তার কে তার স্বামী শাহিন মিয়া তাদের দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে এলোপাতাড়ি মারামারি শুরু করেন, এর এই ঘটনার জেরে মোসাম্মৎ লাকী আক্তারকে মুমূর্ষু অবস্থায় দেখে তার স্বামী গলায় দড়ি দিয়ে ফাঁসির মঞ্চ তৈরি করেন।

স্থানীয় লোকজন সুত্রে জানাযায় গত ৪ সেপ্টেম্বর তাদের মধ্যে সকাল থেকে কথা কাটাকাটি বনিবনা ও ঝগরা হয়ে আসছিল, শাহিন লাকি দম্পতির বড় মেয়ে বলেন আমার বাবা এবং আমার মায়ের দুজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি চলতে থাকে একপর্যায়ে আমরা ঘুমিয়ে পড়ি এরপর সকালবেলা উঠে দেখি আমার মা ঘরের মধ্যে গলায় রশি দিয়ে ঝুলে আছে তখন আমরা চিৎকার করি এলাকার লোক ছুটে আসে তখন আমাদের বাবা পালিয়ে যায়।

মেযেটির মা বাবার কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন আমার মেয়ে প্রায়ই সে অত্যাচার করে এর দু’মাস আগেও এলাকার মুরুব্বিরা বিচার করে সালিশ করে দেয় ,তার পরেও সে প্রতিদিন আমার মেয়েকে অত্যাচার করে এবং বলে তোর বাবার কাছ থেকে আমাকে টাকা এনে দে না হলে তোকে মেরে ফেলবো, ঘটনার আগের দিন সে আমাকে ফোন করে বলে তোর মেয়েকে এসে নিয়ে যা না হলে টাকা দে। সেই কথা বলে গত হাটে গরু ছাগল কিছু বিক্রি করে টাকা নিজের কাছে রাখে,

তবে ঘটনা স্থলে মেজ তে ছেলের লুঙ্গি এবং আসবাসপত্র এলোমেলো অবস্থায় পাওয়া যায়।

ছেলের বাড়ি পাটগ্রাম উপজেলার ২নং পাটগ্রাম ইউনিয়নে গ্রাম পশ্চিম ঘনাবাড়ী ২ নং ওয়ার্ড নিবাসী মোহাম্মদ তৈয়ব আলী ৫৫ এর সন্তান মোহাম্মদ শাহীন ৩৫ তিনি পেশায় একজন গরু ব্যবসায়ী পাশাপাশি কৃষি কাজ করেন কিন্তু তাহার একটি বদ অভ্যাস ছিল ,সেটি হচ্ছে সে একজন পাক্কা জুয়াড়ি। সেজন্য সে তার স্ত্রীর সঙ্গে টাকা নিয়ে প্রায়শই মারপিট করতো।

পাটগ্রাম থানার অফিসার্স ইনচার্জ সুমন কুমার মহন্ত ঘটনা ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং গিয়ে মেয়েটির লাশ উদ্ধার করে বলেন লাশ ময়না তদন্ত করে বুঝা যাবে আত্বহত্যা নাকি হত্যা করা হয়েছে।

শেয়ার করুন...

এই ক্যাটাগরীর অন্যান্য সংবাদ...

আমাদের সাথে ফেইসবুকে সংযুক্ত থাকুন

বিজ্ঞাপন

cloudservicebd.com

বিজ্ঞাপন

ডেইলি সংবাদ প্রতিদিন মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD
themesba-lates1749691102